Laxmi Bhandar Status check: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 2021 সালে দুঃস্থ মহিলাদের আর্থিক সাহায্য করার জন্য এই লক্ষ্মীর ভান্ডার স্কীমটি চালু করেন।

আপনি যদি আপনার লক্ষ্মীর ভান্ডার স্কীম এর পেমেন্ট স্ট্যাটাস বা লক্ষ্মীর ভান্ডার রিলেটেড কিছু জানতে চান কোনো রকম ঝামেলা ছাড়া তাহলে এই আর্টিকেল থেকে সব কিছু জানতে পারবেন।

এই প্রকল্পের মাধ্যমে তপশিলি জাতি ও উপজাতি উপভোক্তাদের (SC/ST) প্রতি মাসে 1000 টাকা করে এবং অন্যান্য মহিলাদের (OBC/General) 500 টাকা করে দেওয়া হয়।

আপনি যদি লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে আবেদন করে থাকেন এবং কবে টাকা ঢুকবে তা দেখতে চান অথবা দু-তিনবার আবেদন করা সত্ত্বেও লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের টাকা কেন ঢুকছে না তারও উপায় জানতে চান তো তারও উপায় রয়েছে।

আপনি খুব সহজেই আপনার মোবাইল নাম্বার,আধার কার্ড নাম্বার, স্বাস্থ্য সাথী কার্ড নাম্বার অথবা অ্যাপ্লিকেশন আইডি দিয়ে লক্ষ্মীর ভান্ডারের পেমেন্ট স্ট্যাটাস চেক করতে পারেন।

পেমেন্ট স্ট্যাটাস চেক করার জন্য কোনো সাইবার ক্যাফ বা অনলাইন দোকানে যাওয়ার প্রয়োজন নেই। কারণ আপনি যে স্মার্টফোনটি ব্যাবহার করছেন তার সাহায্যে চেক করতে পারবেন।

শুধুমাত্র আপনাকে কিছু স্টেপস ফলো করতে হবে। লক্ষ্মীর ভান্ডার রিলেটেড সমস্ত প্রশ্নের উত্তর আপনি পেতে চলেছেন। তো আসুন সময় নষ্ট না করে জেনে নেওয়া যাক।

লক্ষ্মীর ভান্ডার স্কিম এর সংক্ষিপ্ত বিবরণ Overview:

Scheme NameLakshmir Bhandar
StateWest Bengal
Introduced byCM Mamata Banerjee
DepartmentWomen & Child Development and Social Welfare, Govt. of West Bengal
Launched Year2021
BeneficiaryFemales of West Bengal
Age Limit25 to 60 years
BenefitsRs. 1000 per month for SC/ST and Rs. 500 per month for OBC/General.
Application ProcessDuare Sarkar Camp/Municipality
Payment status check direct linkTrack Applicant status
Laxmi Bhandar Helpline Number+91-3323341563/033-23373846 
Lakshmi Bhandar Portal/official websitehttps://socialsecurity.wb.gov.in/

লক্ষীর ভান্ডার মোবাইল নাম্বার দিয়ে চেক করার পদ্ধতি (laxmi bhandar status check phone number):

  • প্রথমে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের এই https://socialsecurity.wb.gov.in/ অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ভিজিট করুন।
  • তারপর সব থেকে নিচের অপশন ট্র্যাক অ্যাপ্লিক্যান্ট স্ট্যাটাস (track applicant status) অপশন ক্লিক করুন।
  • এরপর যে পেজটি ওপেন হবে সেখানে আপনার রেজিস্ট্রার মোবাইল নাম্বার এন্টার করুন।
  • তারপর ক্যাপচা কোড দিয়ে সার্চ (search ) অপশনে ক্লিক করুন। আপনি আপনার পেমেন্টের স্ট্যাটাস এবং অ্যাপ্লিকেশন এর ট্র্যাক রিলেটেড সমস্ত তথ্য পেয়ে যাবেন।
Laxmi Bhandar Status check

Laxmi Bhandar status check with application ID

  • এপ্লিকেশন আইডি দিয়ে লক্ষীর ভান্ডারের পেমেন্ট স্ট্যাটাস চেক করার জন্য পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://socialsecurity.wb.gov.in/ এ ভিজিট করুন।
  • ট্র্যাক এপ্লিকেন্ট স্ট্যাটাস অপশন এ ক্লিক করুন।
  • তারপর এপ্লিকেশন আইডি এবং ক্যাপচা কোড এন্টার করে সার্চ অপশনে ক্লিক করুন।

Laxmi Bhandar status check by Aadhar number

  • অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://socialsecurity.wb.gov.in/ এ ভিজিট করুন।
  • স্ক্রল ডাউন করে নিচে ট্র্যাক এপ্লিকেন্ট স্ট্যাটাস অপশন এ ক্লিক করুন।
  • তারপর যে পেজটি ওপেন হবে সেখানে আধার নাম্বার এবং ক্যাপচা কোড দিয়ে সার্চ অপশনে ক্লিক করুন।

Laxmi Bhandar beneficiary id check

আপনার লক্ষীর ভান্ডার এপ্লিকেশনের বেনিফিশিয়ারি আইডি চেক করার জন্য নিচে দেওয়া স্টেপগুলি ফলো করুন:

  • প্রথমে লক্ষীর ভান্ডার স্কিমের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://socialsecurity.wb.gov.in/ এ ভিজিট করুন।
  • তারপর সব থেকে নিচের অপশন ট্র্যাক এপ্লিকেন্ট স্ট্যাটাস অপসনে ক্লিক করুন।
  • তারপর যে পেজটি ওপেন হবে ওখানে আপনার রেজিস্টার মোবাইল নাম্বার অথবা আধার নাম্বার এন্টার করুন।
  • তারপর ক্যাপচা কোড দিয়ে সার্চ অপশনে ক্লিক করুন।
  • এরপর আপনি পেমেন্ট স্ট্যাটাস এর নিচে আপনার নাম, বেনেফিশিয়ারি আইডি, এবং অ্যাপ্লিকেশন আইডি দেখতে পাবেন।

লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের সুবিধা

পশ্চিমবঙ্গের মাননীয় মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি দুঃস্থ মহিলাদের আর্থিক সাহায্যের জন্য এই স্কীমটি চালু করেন। এই স্কিম এর মাধ্যমে এই স্টেটের মহিলারা তাদের ব্যাঙ্ক একাউন্টে কিছু আর্থিক সাহায্য পাবে।

তপশিলি জাতি এবং উপজাতি মহিলারা এক হাজার টাকা প্রতি মাসে এবং অন্যান্য মহিলারা ৫০০ টাকা প্রতি মাসে এই স্কিমের সাহায্যে পেয়ে থাকে।

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের জন্য কি কি এলিজেবল ক্রাইটেরিয়া রয়েছে?

লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পে অ্যাপ্লিকেশন করার জন্য কিছু এলিজিবল ক্রাইটেরিয়া রয়েছে যেমন:

  • রাজ্যের মহিলারা যাদের বয়স 25 to 60 years এর মধ্যে শুধুমাত্র তারা এই সরকারি প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারে।
  • ওই মহিলা আবেদনকারীকে অবশ্যই পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের বাসিন্দা হতে হবে এবং অবশ্যই তার ঠিকানার বৈধ এবং স্থায়ী প্রমাণ থাকতে হবে।
  • কোন মহিলা যদি এমন কোন পরিবারের সদস্য হন যা সরকারকে আয়কর দেয় তবে তিনি এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারবেন না।
  • তাছাড়া যে পরিবারের ২ হেক্টরের বেশি জমি রয়েছে তারাও এই প্রকল্পের জন্য আবেদন করতে পারবেন না।

লক্ষীর ভান্ডারের প্রকল্পে এপ্লিকেশন করার জন্য কি কি ডকুমেন্ট প্রয়োজন?

  • আধার কার্ড
  • স্বাস্থ্য সাথী কার্ড
  • রেশন কার্ড
  • কাস্ট সার্টিফিকেট
  • আবেদনকারী ব্যাংক একাউন্টের বিবরণ
  • আয়ের প্রমাণপত্র
  • আবেদনকারীর ছবি
  • আবেদনকারীর আবাসিক শংসাপত্র

Laxmi Bhandar online apply

স্টেট গভারমেন্টের যেকোনো স্কিম এ এপ্লাই করার জন্য অনলাইন এবং অফলাইন দুটি পদ্ধতি থাকে। কিন্তু বর্তমানে এই স্কিমটিতে এপ্লাই করার জন্য শুধুমাত্র অফলাইন পদ্ধতি রয়েছে।

Laxmi Bhandar application process

যেহেতু লক্ষ্মীর ভান্ডার স্কিম এ কোন অনলাইন পদ্ধতি নেই এপ্লাই করার জন্য, তাই আপনাকে গভর্নমেন্টের দুয়ারে সরকার ক্যাম্পেইনের সাহায্য লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পের জন্য এপ্লাই করতে হবে অফলাইন পদ্ধতিতে।

এর জন্য আপনাকে আপনার কাছাকাছি দুয়ারে সরকার ক্যাম্পেইন থেকে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের ফর্ম কালেক্ট করতে হবে যেটা ফ্রি অফ কস্ট। তারপর ফর্মটি ফিল আপ করে প্রয়োজনীয় ডকুমেন্টের সাথে ওই দুয়ারের সরকার ক্যাম্পেইনে জমা করতে হবে।

Important লিংক!

লক্ষ্মীর ভান্ডার ফর্ম / laxmi bhandar formlaxmi bhandar form pdf
Laxmi Bhandar Status checkCheck Now

FAQ

মোবাইল নাম্বার দিয়ে লক্ষ্মী ভান্ডারের স্ট্যাটাস?

মোবাইল নাম্বার দিয়ে লক্ষ্মী ভান্ডারের স্ট্যাটাস পাওয়ার জন্য আপনাকে পশ্চিমবঙ্গের লক্ষীর ভান্ডার স্কিমের অফিসিয়াল ওয়েবসাইট https://socialsecurity.wb.gov.in/ এ ভিজিট করতে হবে।
তারপর ওখানে ট্র্যাক এপ্লিকেন্ট স্ট্যাটাস অপশনে ক্লিক করতে হবে।
এরপর আপনার রেজিস্টার মোবাইল নাম্বারটি দিয়ে এবং ক্যাপচা কোড পূরণ করে সার্চ অপশনে ক্লিক করলে আপনি স্ট্যাটাসটি দেখতে পাবেন।

লক্ষ্মী ভান্ডার কত টাকা?

এই প্রকল্পের মাধ্যমে তপশিলি জাতি ও উপজাতি উপভোক্তাদের প্রতি মাসে 1000 টাকা করে এবং অন্যান্য মহিলাদের 500 টাকা করে দেওয়া হয়।

লক্ষ্মী ভান্ডার কি?

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় 2021 সালে দুঃস্থ মহিলাদের আর্থিক সাহায্য করার জন্য এই লক্ষ্মীর ভান্ডার স্কীমটি চালু করেন। যেখানে ডাইরেক্ট ব্যাঙ্ক একাউন্ট এর মাধ্যমে আর্থিক সাহায্য করা হয়।

স্বাস্থ্য সাথী কার্ড না থাকলে কি লক্ষীর ভান্ডার হবে না?

লক্ষীর ভান্ডার স্কিমের সুবিধা পাওয়ার জন্য স্বাস্থ্য সাথী কার্ড বাধ্যতামূলক ছিল। কিন্তু বর্তমানে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড না থাকলেও লক্ষ্মীর ভান্ডারের জন্য এপ্লাই করা যাবে এরকম ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।